১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার, রাত ৪:৫৪
কবি আমিনুল ইসলামের অনুভূতিতে বঙ্গবন্ধু
বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০
আপনার মতামত লিখুন :

One response to “কবি আমিনুল ইসলামের অনুভূতিতে বঙ্গবন্ধু”

  1. পুরো বক্তবটি (ভিডিওসহ) শুনেছি। বাঙালি জাতির জাতি সত্তার বিকাশে কবি-সাহিত্যিক, সমাজ সংস্কারক, মনীষী, রাজনীতিবিদের ভূমিকা চমৎকারভাবে ফুটে উঠেছে। স্বাধীন বাংলাদেশের সৃষ্টির একটি ধারাবাহিক বর্ণনায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভূমিকা শক্তিশালীভাবে তথ্যভিত্তিক বক্তব্যে এসেছে। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ স্বাধীনতার ঘোষণার চূড়ান্তরূপ ছিলো তা যুক্তিসঙ্গতভাবে বক্তব্যে ইতিহাসের দৃষ্টিকোণ থেকে স্থান পেয়েছে। কবির ‘তর্জনী’ কবিতা পাঠে গায়ে শিহরণ জাগে! এ কবিতার কাব্যভাষা বাংলা সাহিত্যে অনন্য। কবিতাটি মাধ্যমিক স্তরে পাঠ্যসূচীতে থাকা বাঞ্ছনীয়। এতে করে নতুন প্রজন্ম ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ ও বঙ্গবন্ধুকে অনুধাবন করার অন্যতম মাধ্যমের সুযোগ হতে পারে। এ বক্তব্যটি স্বাধীনতার ইতিহাসে অকাট্য দলিলও হতে পারে। ধন্যবাদ শ্রদ্ধেয় কবিকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু নিয়ে অনন্য বক্তব্যের জন্য। ধন্যবাদ বাংলা সাহিত্য গবেষণা কেন্দ্রকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *